ইতালী আওয়ামী লীগ কাতানিয়া শাখার উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

প্রকাশিত: ৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২১

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ইতালী আওয়ামী লীগ কাতানিয়া শাখা। কাতানিয়ায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ১৫ আগস্ট শহীদ হওয়া সকলের রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালোরাতে নিহত সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ইতালী আওয়ামী লীগ কাতানিয়া শাখা সহ বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

ইতালী আওয়ামী লীগ কাতানিয়া শাখার সভাপতি মোল্লা সেলিম সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় টেলি কনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন ইতালী আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজী ও সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সিনিয়ার সহ সভাপতি নওয়াব সৌজন্য, সহ সভাপতি আতিকুর রহমান, সহ সভাপতি হাবিব দেওয়ান, সম্মানিত সদস্য আবু সাঈদ, সম্মানিত সদস্য টুটুল আহাম্মেদ, মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্ববায়ক রিয়াজুল জান্নাত, মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্ববায়ক সর্নালী মল্লিক, মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইভা কবির, মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য সনিয়া আলম, যুবলীগ নেতা নাজমুল চৌধুরী, কবির বেপারী, হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন, ইতালী আওয়ামী লীগ ইতালী শাখার আরও নেতা কর্মীরা সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য নেতৃত্বের কারণেই বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধীন দেশের জন্ম হয়েছে। ঘাতকরা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে বঙ্গবন্ধু এবং তার পরিবারের সদস্যদের হত্যার মাধ্যমে জাতির ইতিহাসে একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় রচনা করেছিল। তাঁরা বলেন, ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও তার স্বপ্ন ও আদর্শ আজ ছড়িয়ে পড়েছে সবখানে।

আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে দ্রুত রায় কার্যকরের জোর দাবি জানান। এছাড়াও যারা এই হত্যাকাণ্ডের পেছন থেকে ইন্ধন দিয়েছে তদন্তের মাধ্যমে তাদেরকেও দ্রুত বিচারের আওতায় আনার জোর দাবি জানান তাঁরা।

Print Friendly, PDF & Email