প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ৭৫টি মিউজিক লাইভ সিরিজ লুপর্ণা মুৎসুদ্দি লোপার

প্রকাশিত: ৬:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০২১

বাংলাদেশ বেতারের লোকসংগীত শিল্পী লুপর্ণা মুৎসুদ্দি লোপার প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে টানা ৭৫ দিনের ৭৫টি গান নিয়ে মিউজিক লাইভ সিরিজ গত ১৬ জুলাই শুরু হয়ে গত ২৮ সেপ্টম্বর প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের দিন শেষ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে গানগুলো তার ব্যক্তিগত ফেসবুক ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশও করা হয়েছে।

জানা গেছে, সুর প্রিয়াসীর সার্বিক সহযোগিতায় গত ১৬ জুলাই থেকে ৭৫দিনব্যাপী ২৮ সেপ্টম্বর পর্যন্ত চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের বছরটি স্মরণীয় করে রাখতে এ আয়োজন করেছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন সংগীত শিল্পী লোপা। তার গানের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন, বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের অর্জন ও প্রশংসা, সুদক্ষ দেশ পরিচালনা ও নেতৃত্ব এবং গুনাবলীর চিত্র তুলে ধরা ধরা হয়েছে। সংগীত শিল্পী লোপার জন্ম ও বেড়ে ওঠা চট্টগ্রামে। এর আগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে গত বছর ১০০টি গান গেয়ে ১০০ দিনের লাইভ অনুষ্ঠান করেন এই শিল্পী। যা চট্টগ্রামসহ সারাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গন ও বঙ্গবন্ধুর ভক্তদের মাঝে প্রশংসিত হয়েছে। লুপর্ণা মুৎসুদ্দি লোপা বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে ভালোবেসে এবং তাঁর এই জন্মদিনকে স্মরণীয় করে রাখতেই এই গান গাওয়া। এর আগে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে ১০০টি গান গেয়েছি। গত বছর জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে প্রয়াত অশোক সেন গুপ্তের লেখা ও সুরে জাতির জনককে নিয়ে একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করেছি যা সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছে।

শিল্পী আরো জানান, প্রতিদিন একই সময়ে নিজের মৌলিক গানের পাশাপাশি বিভিন্ন শিল্পীর গান পরিবেশিত হযেছে । আড়াই মাসের বেশী সময় তিনি শুধু নিয়মিত রুটিন মাফিক শুধু মাত্র এই কাজটি করেছেন। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ৭৫দিনের লাইভ সিরিজের বিষয়টি লিখিতভাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ এমপি, প্রধানমন্ত্রীর কার্য্যালয়ের মুখ্য সচিব ড. আহমেদ কায়কাউসকেও জানিয়েছেন বলে জানান তিনি। জয় বাংলা মাল্টি মিডিয়ার চেয়ারম্যান জনি বড়ুয়া ও চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের সাধারণ সম্পাদক কবি আসিফ ইকবাল বলেন, একজন মানুষ কতটা ভালবাসলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবারকে নিয়ে এই কাজ করতে পারনে, শিল্পী লোপা যেটা করেছে সেটা বাংলাদেশে আর কেউ করেনি। উনাকে উৎসাহ যোগাতে রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মাননা দেয়া উচিত বলে তারা মনে করেন।

উল্লেখ্য, ৯০ দশকের আলোচিত সাংস্কৃতিক আন্দোলনের নেত্রী শিল্পী লুপর্ণা মুৎসুদ্দি লোপা ছোটবেলা থেকেই গানের হাতেখড়ি। এবং গানের প্রতি গভীর এক টান থেকেই সংগীত চর্চা করে যাচ্ছেন। ১৯৮০ সালের চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র এ. বি. এম মহিউদ্দনি চৌধুরীর গড়া আওয়ামী শিল্পী গোষ্ঠীতে প্রয়াত অশোক সেন গুপ্তের অনুপ্রেরণায় গানের প্রতি সঁপে দেন ধ্যান-জ্ঞান সব। ২০১২ সালে বাংলাদেশ বেতারে আধুনিক গানের শিল্পী হিসাবে তালিকাভুক্ত। আর প্রয়াত অশোক সেন, প্রয়াত দীপক আচার্য, প্রয়াত জি. কে দও, শিল্পী এবং সংগীত পরিচালক রিটন কুমার ধরের বেশ কিছু গানে তিনি কণ্ঠ দিয়েছেন। সাবেক সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর এমপি, সুবর্ণা মোস্তাফা এমপিসহ অনেকের সাথে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্বও দিয়েছেন।অধিকাংশ গান বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে সম্প্রচার করা হয়েছে। তিনি চট্টগ্রাম শিল্প কলা একাডেমির সদস্য ও আন্তর্জাতিক লালন মঞ্চের শিল্পী হিসেবেও দেশব্যাপী ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email