সকল ধরনের সাম্প্রদায়িকতার ছাপ-ছোপ বর্জন করে বাঙালিয়ানার সংষ্কৃতির পুনর্জাগরণ করতে হবে- ইনু এমপি

প্রকাশিত: ২:৪৫ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২১

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি বলেন, বাঙালিত্বকে কেন্দ্র করেই মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং একটি জাতি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা হয় ১৯৭১ সালে। বাঙালিত্বকে ধারণ করে এবং উপজাতিসত্ত্বা সমূহের মর্যাদাকে স্বীকার করে বাঙালিয়ানাকে কেন্দ্র করে হাজার বছরের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে। যারা বাংলাদেশ বিরোধী, পাকিস্তানপন্থী, সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদে বিশ^াস করে তারা সব সময় বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির উপর আক্রমণ করে; বাঙালিয়ানার চর্চায় বাঁধা দেয়; বিজাতীয় সংষ্কৃতি চাপিয়ে দেয়; মুক্তিযুদ্ধকেও অস্বীকার করে। তাই বাঙালিত্ব ও বাঙালিয়ানার উপর আক্রমণকারীদের মোকাবেলা, দমন ও বর্জন করতে হবে।

জনাব ইনু বলেন, বাঙালিয়ানার চর্চার পুনর্জাগরণ করতে সবাইকে পোশাকে, নামকরণে, খাওয়া, গানবাজনা, শিক্ষায় বাঙালিয়ানার ছাপ দেখাতে হবে। তিনি সকল ধরনের সাম্প্রদায়িকতার ছাপ-ছোপ বর্জন করে বাঙালিয়ানার সংস্কৃতির পুনর্জাগরণ করতে জাতীয় যুব জোটের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

হাসানুল হক ইনু এমপি বলেন, দুর্নীতিবাজরা হচ্ছে অর্থনীতির বিষপোড়া, ফসল কাটা ইঁদূর। করোনাকালেও কিছু চোর স্বাস্থ্য খাতে চুরি করেছে। বৈষম্য হচ্ছে শ্রমিক, গরীব, নারীর চোখের কান্না, বৈষম্য হলেই তারা নীরবে কাঁদে। সাম্প্রদায়িকতা হচ্ছে বিষাক্ত সাপ, বিষাক্ত সাপকে বিশ^াস করতে নেই, যে কোন সময় ছোবল মারতে পারে। তিনি বলেন, মীমাংসিত বিষয় যারা মানে নাÑ একাত্তরের যুদ্ধ, জাতির পিতা, ত্রিশ লক্ষ শহীদ, স্বাধীনতার ঘোষণা, সংবিধানের চার মূলনীতি, সামরিক শাসন অবৈধÑ তারা মূলত বাংলাদেশ বিরোধী, গণতন্ত্র বিরোধী, সমাজ বিরোধী শক্তি; তারা দেশদ্রোহী, জাতীয় বেঈমান।
হাসানুল হক ইনু এমপি উন্নয়ন-সুশাসন-সমাজতন্ত্রের পাশাপাশি বাঙালিয়ানা সংস্কৃতির পুনর্জাগরণের আন্দোলন এগিয়ে নিতে জাতীয় যুব জোটের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সহযোগী যুব সংগঠন আজ ২ অক্টোবর ২০২১ শনিবার সকাল ১০ টায় কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত জাতীয় যুব জোটের কেন্দ্রীয় কর্মশালার সমাপনী অধিবেশনে জনাব হাসানুল হক ইনু এমপি এ কথা বলেন।
জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন জাসদের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শফি উদ্দিন মোল্লা, দফতর সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন, জাতীয় যুব জোটের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপন। এছাড়াও এ কর্মশালায় বিভিন্ন পর্বে কথা বলেন জাতীয় যুব জোটের সহ-সভাপতি কাজী সালমা সুলতানা, আসিফুর রহমান বাবু, আমিনুল আজিম বনি, প্রদীপ কুমার রায়, প্রভাষক আমিনুল ইসলাম কোহিনুর, শভংকর দে বাপ্পা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আক্তার বাবু, মোহম্মদ সামসুল ইসলাম সুমন,ধীমান বড়ুয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সুজন, রমজান আলী সিকদার, হাসানুজ্জামান তুহিন,  সুজন প্রসাদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক  অজিত কুমার দাস হিমু প্রমুখ। এ ছাড়াও এ কর্মশালায় জাতীয় যুব জোটের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email