ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে চাটমোহরে  উৎসবের আমেজ

মো: আল আমিন মো: আল আমিন

পাবনা জেলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২:২১ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২১
ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচার-প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন প্রার্থীরা। বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করেছেন তারা। এলাকার উন্নয়নে নানা প্রতিশ্রুতি তাদের মুখে।

তবে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন আনুষ্ঠান নিয়ে শঙ্কায় চাটমোহরে স্থানীয় প্রার্থী ও ভোটাররা। প্রার্থীরা একে অন্যের বিরুদ্ধে আনছেন আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিভিন্ন অভিযোগ। তবে প্রশাসন বলছে ভোট হবে সুষ্ঠ

উপজেলার ইউপি নির্বাচনের তৃতীয়  ধাপে চাটমোহর উপজেলার ১১টি   ইউনিয়নে ভোট হবে। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণায় সরব হয়ে উঠেছে নির্বাচনী

আর ৫ দিন পরেই ২৮ নভেম্বর এ উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তৃতীয় ধাপের এই ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪০ জন,সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪৮জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৮২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে ২টি ইউনিয়নের দুই ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন সাধারণ সদস্য। ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে ৭টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী,৯টি ইউনিয়নে বিএনপি স্বতন্ত্র,৫টি ইউনিয়নে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও ১টি ইউনিয়নে গণতন্ত্রী পার্টির প্রার্থী রয়েছেন।

উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের গ্রামে   এখন উৎসবমুখর বিরাজ করছে নির্বাচনী উত্তাপ। প্রার্থীদের পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে গ্রাম-গঞ্জে  হাট-বাজার,রাস্তা-ঘাট,বাড়ির আঙিনা। হাট-বাজার আর রাস্তার মোড়ে মোড়ে প্রতিটি চা স্টলে চলছে নির্বাচনী আড্ডা। আড্ডায় আলোচনা চলছে,কে হবেন চেয়ারম্যান আর মেম্বার। চলছে ভোটের নানা হিসাব নিকাশ। কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে প্রচার-প্রচারনা। প্রার্থীরা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন,ভোট প্রার্থনা করছেন। দিচ্ছেন উন্নয়নের রকম রকম প্রতিশ্রুতি। ঘুম নেই প্রার্থী ও তাদের কর্মী-সমর্থকদের চোখে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে বিশ্বাস করেন গ্রামের সাধারণ মানুষ। তারা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে চান।

গত রবিবার   বিকাল   কথা হয় ছাইকোলা ইউপি স্বতন্ত্র (বিএনপি)চেয়ারম্যান  প্রার্থী(সাবেক চেয়ারম্যান) আতাউর রহমান তোতা   সাথে । তিনি বলেন, জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিতে চান। প্রশাসন এ বিষয়ে অবশ্যই পদক্ষেপ নিবেন। আমি  ছাইকোলা ইউনিয়ন বাসীর সুখ দুঃখের সঙ্গে ছিলাম আছি থাকবো ,এবং  ইউনিয়ন উন্নয়নের আমি কাজ করে যাবো আমি শতভাগ আশাবাদী ছাইকোলা এর জনগণ আমাকে মূল্যায়ণ করবে ,বিগত দিনের উন্নয়ন  কাজের মূল্যায়ন করে জনগণ আমাকে ভালোবেসে ফের আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন।

বিলচলন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী নৌকার আবুল কালাম আজাদ বলেন,নৌকার জনপ্রিয়তায় অন্য প্রার্থীর লোকজন ঘরে উঠে পড়েছেন। নৌকার ব্যাপক বিজয় হবে।
হরিপুর ইউনিয়নর ৪নং ওয়ার্ড সদস্য প্রার্থী (মোরগ মার্ক )মোঃ বাবলু রহমান বলেন আমি বিগত ২ বার এই ওয়ার্ড এর মেম্বর ছিলাম। ওয়ার্ড বাসির পাশে ছিলাম থাকবো , ভোটারের ভালোবাসায় আবারও প্রার্থী হয়েছি। অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচন হলে আমি বিপুল ভোট বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ।
চাটমোহর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ আলমগীর হোসেন জানান,সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণে প্রশাসন সকল ব্যবস্থা নিবে। আমরা সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করছি।

Print Friendly, PDF & Email