কালিগঞ্জের ১২ নং মৌতলা ইউপিতে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে আলোচনার শীর্ষে আছেন মোঃ ফেরদাউস মোড়ল।

প্রকাশিত: ২:৩০ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২১

 মোঃ আলাউদ্দীন কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ-– নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই গরম হয়ে উঠছে রাজনীতির মাঠ, সকাল হতে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত পথে ঘাটে চায়ের দোকানে চলে নির্বাচনের প্রচার প্রচারণা। আসন্ন ১২ নং মৌতলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ঘোড়া প্রতীক নিয়ে আলোচনায় শিষ্য আছেন সাতক্ষীরা জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার ১২ নং মৌতলা ইউনিয়নের মোঃ ফেরদাউস মোড়ল তিনি দীর্ঘ পাঁচটি বছর সুনামের সাথে ইউ,পি সদস্য দায়িত্ব পালন করেন ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতের মাধ্যমে তিনি সুশাসন এবং বিচার ব্যবস্থাপনা সঠিকভাবে পরিচালনা করে গরীব অসহায় ও অবহেলিত গনমানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন । এলাকার মানুষের জন্য সমাজসেবা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশপ্রেমিক ও জনদরদি মোঃ ফেরদাউস মোড়ল মৌতলা ইউনিয়নে উন্নয়ন জনগণের দোড়গোড়ায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তাকে ঘিরেই সর্বত্র চলছে আলোচনা। দলের নেতা-কর্মিদের চাওয়া ইউ-পি নির্বাচনে ১২ নং মৌতলা ইউনিয়নের সব জায়গায় মোঃ ফেরদাউস মোড়লের আলাদা জনপ্রিয়তা রয়েছে। তাইতো ১২ নং মৌতলা বাসি তাকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চান এলাকাবাসী। ১২ নং মৌতলা ইউনিয়নের এমন ত্যাগী সৎ যোগ্য নেতা খুব কমই দেখা যায়। তাইতো তার এই ত্যাগের মূল্য দিতে চলেছে মৌতলা ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগন। মানুষের মুখে একটায় কথা আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তার মত একজন সৎ, মেধাবী, তরুন সমাজ সেবক, সাহসী, ত্যাগী, নেতাকে দেখতে চাই। সাংবাদিক শেখ মারুফ হোসেনের সাথে একান্ত আলাপচারিতায় এই তরুন প্রজন্মের ও ক্লিন ইমেজের নেতা তার ভাবনার কথা তুলে ধরেন তিনি বলেন ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী হলে সর্বপ্রথমে আমারা একটা মডেল ইউনিয়ন পরিষদ গড়তে চাই যেটা হবে কালীগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন পরিষদ। মসজিদ, মন্দির সহ রাস্তা ঘাট এর উন্নয়নে কাজ করতে চাই , আমি দূর্নিতি ও মাদক মুক্ত মৌতলা ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। অসহায় মানুষের জন্য কাজ করবো, অত্র এলাকার যে সকল রাস্তা কাঁচা আছে তা সোলিংকরণ, আর সোলিং রাস্তা ঘাট সমুহ পিচ করা সহ ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন করবো, সেচ ব্যাবস্থা জোরদার করতে ড্রেন বা কালভার্ট বিনির্মান করবো। জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য কাজ করবো। তিনি আরও বলেন মাদকমুক্ত, শিশুবিবাহ রোধ কল্পে কালিগন্জ প্রশাসন এর সাথে সমন্বয়করার মাধ্যমে শিশু বিবাহ কে রোধ করতে চাই। এলাকাবাসী সবাই মিলে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলে সরকার প্রদত্ত সুযোগ সুবিধা প্রদান করে আমৃত্যু মানুষের জন্য কাজ করে যাবো ইনশাআল্লাহ। সরকারের ভিশন সবার মাঝে পৌঁছে দিতে কাজ করে যাচ্ছি এবং যাবো। মানুষের দৌড় গোড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করে যাচ্ছি এবং যাবো। সর্বশেষ তিনি বলেন এলাকাবাসীর দোয়ায় ইনশাআল্লাহ আমি জয়লাভ করবো।

Print Friendly, PDF & Email