লালমনিরহাটে  বিএনপি’র বিক্ষোভ, আহত ৫

প্রকাশিত: ৪:২৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ৫, ২০২২

 লালমনিরহাট প্রতিনিধি-

দেশব্যাপী দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ডাকা বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ লালমনিরহাটের পাঁচটি উপজেলায় একযোগে পালিত হয়েছে।

৫ই মার্চ ( শনিবার) দুপুর ১২.৩০ মিনিটে কালীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’ কার্যালয় চত্বরে পালিত হয়।

কর্মসূচি উপলক্ষে  সকাল থেকে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে এসে জড়ো হতে থাকে। পরে বিক্ষোভ মিছিল দলীয় কার্যালয় থেকে  লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক  অভিমুখে বের হওয়ার চেষ্টা চালালে কালিগঞ্জ থানা পুলিশ বিক্ষোভ মিছিলটি কে আটকানোর চেষ্টা করে।  পুলিশী  ব্যারিকেড ভেঙ্গে বিএনপি’র দলীয় নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করতে থাকে। একপর্যায়ে পুলিশ বিক্ষোভ মিছিলটি কে নিয়ন্ত্রণে নিতে সক্ষম হলে নেতাকর্মীরা পুনরায় দলীয় কার্যালয়ে এসে জড়ো হন। এবং সেখানেই বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক  জাহাঙ্গীর আলম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আওয়ামী লীগ একটি ব্যর্থ ও জুলুমবাজ সরকার। এ সরকার মানুষের ভোট প্রয়োগের অধিকার হনন করে রাতের আধারে ভোট ডাকাতির মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।  আজ সারা বাংলাদেশে  নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি ও  নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে দেশের সকল উপজেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি। তিনি আরো বলেন স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতির মাধ্যমে যারা আজকে এই কর্মসূচিকে সফল করেছেন তাদেরকে কালীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।  এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ,বিএনপি ও তার সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অপরদিকে জেলার হাতীবান্ধায় দলীয় কার্যালয় থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি। মিছিলটি পথেই পুলিশের বাঁধা পেলে ওই স্থানেই বক্তব্য দিতে শুরু করেন বিএনপির নেতারা । এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা একটি মিছিল নিয়ে বিএনপি কার্যালয়ের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়।

পরে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা মেডিকেল মোড়ে এলে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরাও মেডিকেল মোড়ে আসে। ফলে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ লাঠি চার্জ করে উভয়পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে উভয় পক্ষে অন্তত ৫ জন আহত হয়।  এছাড়া জেলার অন‌্য কোন উপজেলায় তেমন কোনো ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email