সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০২২
মুহিবুর রেজা টুনু সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
দীর্ঘ ৬ বছর পর আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে সুনামগঞ্জের ১২টি উপজেলা,ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকদের উপস্থিতি সুনামগঞ্জে আওয়ামীলীগের প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার সকাল ১১টায় জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শহরের নতুন শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তে এ প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলার র্দূদিনের কান্ডারী তৃণমূলের আওয়ামীলীগের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহনে হল কানায় কানায় ভরে উঠে।
সাবেক সংসদ সদস্য ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক ব্যরিস্টার এম এনামুল কবির ইমনের উপস্থাপনায় প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ।
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক মন্ত্রী আওয়ামীলীগের প্রেসিডয়াম সদস্য এড. জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ,সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন,পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান,আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আজিজুস সামাদ ডন,সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক,সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইজ্ঞিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন,সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুট,সংরক্ষিত মহিলা সাংসদ এড.শামীমা আক্তার খানম,সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত।
এছাড়া ও উপস্থিত ছিলেন,জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এড. আপ্তাব উদ্দিন,রেজাউল করিম শামীম,এড. অবনী মোহন দাস,নোমান বখত পলিন,সৈয়দ আবুল কাশেম,সুনামগঞ্জ জজকোর্টের পিপি খায়রুল কবির রুমেন,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এড. নান্টু রায়,হায়দার চৌধুরী লিটন,সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান,জুনেদ আহমদ,শংঙ্কর চন্দ্র দাস,কৃষি বিষযক সম্পাদক ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিছ আলী বীর প্রতিক,সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী আবুল কালাম,সাধারন সম্পাদক মোবারক হোসেন,দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বাবু প্রদীপ রায়,তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি  আবুল হোসেন খাঁ,সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. আকমল হোসেন,সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু,জেলা আওয়ামীলীগের মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সীতেশ তালুকদার মঞ্জু,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এড. আজাদুল ইসলাম রতন,বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন চৌধুরী,ছাতক উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান,ছাতক পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী,শাল্লা উপজেলা চেয়ারম্যান আল আমীন চৌধুরী, জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আল আজাদ,জামালগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নবী হোসেন,বিশ^ম্ভরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মানিক হোসেন,শান্তিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. আব্দুল হেকিম,সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম,মন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব মো. হাসনাত হোসাইন,ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শামীম আহমদ বিলকিস,বিশ^ম্ভরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. সফর উদ্দিন,সুলকাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকী তপন,জেলা পরিষদের সদস্য জহিরুল হক,মাহাতাবুল হাসান সমুজ, সদরের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা কেয়া,জেলা যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আসাদুজ্জামান সেন্টু,সদস্য সবুজ কান্তি দাস,শান্তিগঞ্জের আব্দুল গনি ভান্ডারী,পশ্চিম বীরগাও ইউপি আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন,পাথারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহীদুল ইসলাম,শিমুলবাক ইউপি চেয়ারম্যান শাহীনুর রহমান শাহিন প্রমুখ।
আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দরা বলেছেন,প্রধানমন্ত্রীর কাছে সকল নেতাকর্মীদের রিপোর্ট আছে, সেই রিপোর্ট অনুযায়ী আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়া হবে। তারা বলেন, একটি চক্র বাংলাদেশ দ্রব্য মূল্যের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। দেশে কৃত্রিম সংকট তেরি করেছে। এই চক্র থেকে আমাদের সবাইকে সর্তক থাকতে হবে। মনে রাখতে হবে বাংলাদেশে ষড়যন্ত্র চলছে। ভুলে গেলে চলবে না সামনে নির্বাচন যদি আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় না আসতে পারে তাহলে সেই অতিথিতে মত বাংলাদেশ দূর্যোগ নেমে আসবে। অধিক মোনাফালোভী সিন্ডিকেট চক্র জিনিসপত্রের কৃত্রিম সংকট বাড়িয়ে বাজারকে অস্থির করে তুলেছে, প্রধানমন্ত্রীর কঠোর নির্দেশনা দেয়া আছে যারা গরীব মানুষের পেঠে লাথি মারতে চায় ঐ সমস্ত সিন্ডিকেটদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তারা আরো বলেন,করোনার দুই বছর পর বিশ্ব বাজার এখনও টিক করে মাথা উচু করে দাড়াঁতে পারেনি। টিক তখনই রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে এর প্রভাব বাংলাদেশে ও পড়েছে।
তারা আরো বলেন, বিএনপি-জামাতের হাত থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ উন্নয়মের মহা সড়কে ভাসছে। যারা ঢাকায় বসে জেলা আ্ওয়ামীলীগের কার্যক্রম পরিচালনা করতে যান তারা সাবধান হয়ে যান। যে সমস্ত ত্যাগী নেতারা আওয়ামীলীগের র্দূদিনে বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে রাস্তায় মার খেয়েছেন আগামী জুন মাসে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে তাদেরকে নেত্রী মূল্যায়ন করবেন। তারা বলেন দলে কোন প্রকার বিভাজন চলবে না। সামনে আরো কঠিন সময় আসছে আগামী দুইবছর পরে জাতীয় সংসদ নির্বাচন আসছে তাই সকল নেতাকর্মীদের ভেদাভেদ ভূলে গিয়ে দলের স্বার্থে ও দেশের মানুষের স্বার্থে এই জেলার ৫টি আসনে যারাই নৌকা পাবেন তাদের বিজয়ী করতে এখন থেকে এই সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো জনগনের মাঝে তুলে ধরার আহবান জানান।
Print Friendly, PDF & Email